Skip to content

তন্দুরী চিকেন বিরিয়ানী

ভাবছেন এই গরমে বিরিয়ানী? কদিন যাবত অবশ্য গরমটা নেই আগের মত। আর এই তন্দুরী চিকেন বিরিয়ানী একদমই অন্য বিরিয়ানীর মত নয়। বরং ভীষণ হালকা আর সেই সাথে অসম্ভব মজাদার। আজ আপনাদের জন্য তন্দুরি চিকেন বিরিয়ানীর রেসিপি নিয়ে এলাম। আসুন দেখি কি ভাবে তন্দুরী চিকেন বিরিয়ানী প্রস্তুত করতে হয়….

উপকরণ ১:
মুরগি এক কেজি চার টুকরো ,আদা রসুন বাটা দুই চা চামচ,গরম মশলা গুরো এক চা চামচ,তন্দুরি মসলা দুই চা চামচ,লেবুর রস দুই টেবিল চামচ,ঘি দুই টেবিল চামচ,সয়াবিন তেল দুই টেবিল চামচ,টক দই পৌনে এক কাপ,লবণ স্বাদমতো, জাফরান পছন্দ মত।

উপকরণ ২:
পোলাওয়ের চাল ৫০০ গ্রাম, গরম জল দেড় লিটার, আদা বাটা এক চা চামচ, আস্ত এলাচ, দারচিনি, তেজপাতা, লবঙ্গ তিনটি করে, কাঁচা লংকা পাঁচটি, লবণ স্বাদমতো, গুঁড়ো দুধ এক টেবিল চামচ, চিনি এক চা চামচ, পেঁয়াজ কুচি আধ কাপ, ঘি এক কাপ, গোলাপ জল এক টেবিল চামচ।

প্রণালি ১:
মুরগি চার টুকরা করে ধুয়ে ভালোভাবে জল নিংড়ে নিন। মুরগির গায়ে ছুরি দিয়ে আঁচড় কেটে দিন।সব উপকরণ দিয়ে মুরগি ম্যারিনেট করে রাখুন দুই ঘণ্টা।এবার মুরগির টুকরাগুলো ২০ মিনিট গ্রিল করুন।হালকা বাদামি রং হবে।

প্রণালি ২:
হাঁড়ি চাপিয়ে ঘি দিন।গরম হলে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে হালকা বাদামি করে ভেজে নিন। অর্ধেক পেয়াজ ভাজা তুলে রাখুন।এবার গোটা গরম মসলা দিয়ে আগে থেকে ধুয়ে রাখা চালে আদা বাটা দিন।চাল সামান্য ভেজে জল দিন। গুঁড়ো দুধ ও লবণ দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন।চাল ফুটে উঠলে কাঁচা লংকা, চিনি ও মটরশুঁটি দিয়ে নেড়ে ঢেকে দিন।পোলাওয়ের জল টেনে এলে অর্ধেক পোলাও উঠিয়ে গ্রিল করা মাংস দিয়ে বাকি পোলাও দিয়ে ঢেকে ওপরে কেওড়া জল ছড়িয়ে ৩০ মিনিট ভাপান।তুলে রাখা পেঁয়াজ ভাজা মিশিয়ে নিন। হয়ে গেলে বাটিতে ঢেলে পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: