Skip to content

ক্যারামেল পুডিং

ac196-e0a695e0a78de0a6afe0a6bee0a6b0e0a6bee0a6aee0a787e0a6b2-e0a6aae0a781e0a6a1e0a6bfe0a682-1240600

উপকরণ:

দুধ ১ লিটার,

চিনি নিজের পছন্দমতো,

ডিম ৪টি,

ঘি বা মাখন আধা টেবিল চামচ।

প্রণালি: 

১ লিটার তরল দুধ নিয়ে জ্বাল দিয়ে আধা লিটার করুন এবং নামিয়ে কিছুক্ষণ ঠান্ডা করুন। একটি বাটিতে ডিম নিয়ে ভালো করে ফেটে নিন। কিছুক্ষণ পর পর চিনি দিয়ে ফেটতে থাকুন, এবং ফোমের মত করে নিন। খুব ভাল করে ফেটানো হয়ে গেলে এতে ঘি বা মাখন দিয়ে আবার ফেটুন। যেই বাটিতে পুডিং বানাবেন তাতে এক চামচ চিনি ও এক চামচ পানি দিয়ে ক্যারামেল করে নিন। এটা করতে চিনি বারবার নেড়ে ঘন সিরার মত করে নিন। একসময় এর রঙ খয়েরী হয়ে যাবে। তখন চুলা থেকে নামিয়ে চারপাশে ছড়িয়ে দিয়ে ঠান্ডা করে নিবেন।

ডিম আর চিনির যেই মিশ্রন তৈরি করেছিলেন, তাতে এবার একটু একটু করে দুধ মিশিয়ে নাড়তে থাকুন। তাঁর আগে অবশ্যই দুধটাকে ঠান্ডা করে নিবেন। কারণ গরম দুধ মেশালে এটা ডিমটাকে জমাট করে ফেলবে। এবার আগের তৈরি করে রাখা পুডিংয়ের বাটিতে দুধটুকু ঢেলে নিন। একটি বড় সসপ্যানের মত পাত্র চুলায় বসান। তাঁর মধ্যে একটি পাতিল রাখার স্ট্যাণ্ড বসিয়ে দিন। এবার ওই পুডিংয়ের বাটিটা স্ট্যাণ্ডে বসিয়ে দিন। বাটির মুখ এলুমিনিয়াম ফয়েল পেপার বা কোনও ঢাকনা দিয়ে ভালো করে ঢেকে দিন। ১/৪ অংশ পানি দিয়ে ভরে ফেলুন। সসপ্যানটিকেও ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। এবার সসপ্যানের উপর শিল, নোড়া বা ভারী কিছু দিয়ে চাপা দিন।

 

এখন জ্বাল দিতে থাকুন। ২০-২৫ মিনিটের মধ্যেই পুডিং হয়ে যাবে, তাই সতর্ক থাকুন। চুলা থেকে নামানোর আগে একটি কাঠি দিয়ে পুডিং ঠিকমতো হয়েছে কিনা পরীক্ষা করে নিন। এরপর পুডিং-এর বাটি একটু ঠান্ডা হলে একটি ছড়ানো প্লেটে উল্টো করে দিন। এতে পুডিংয়ের ক্যারামেল অংশটি ওপরে চলে আসবে। আরও সুস্বাদু করে পুডিংটি খেতে রেফ্রিজারেটরে রেখে ঠাণ্ডা করে নিন। এবার কেটে কেটে জেলী অথবা জ্যাম দিয়ে পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: