Skip to content

চোখের উপরের ঘা দূর করতে প্রাকৃতিক ঔষধ

চোখের উপর ঘা যেটাকে বাংলায় বলে এলকানা খুব বেদনাদায়ক ও অস্বস্তিকর হয়ে থাকে। এটা আসলে সৃষ্টি হয় চোখের পাপড়ীর সেবাসিয়াস গ্লাণ্ডের ইনফেকশনের কারণে। যদিও এই ইনফেকশন খুব গুরুতর কিছু নয় এবং কিছু এন্টিবায়োটিকের ব্যবহারে দ্রুত কমে যায়, কিন্তু চাইলে আপনি প্রাকৃতিক উপায়েও এলকানা দূর করতে পারেন। এখানে এক রাতের মধ্যে এলকানা দূর করার কিছু প্রাকৃতিক উপায় দেয়া হলোঃ

stye-on-upper-eyelid-4111010

লবণাক্ত পানি

এক লিটার পানিতে দুই চামচ লবন দিয়ে তা ফুটিয়ে নিন। তারপর পানিটা একটু ঠান্ডা করে একটি পরিষ্কার তোয়ালে বা একটি কটন প্যাড ওই পানিতে ডুবিয়ে নিন। তারপর তা চোখের পাতার উপর রেখে দিন। যখনই ঠান্ডা হয়ে যাবে তখনই আবার গরম পানিতে চুবান। এভাবে ২০ মিনিট পরিচর্যা করুন। এটা সকাল ও সন্ধ্যায় নিয়মিত ব্যবহার করবেন। ব্যস আপনার বিরক্তিকর এলকানা দূর হয়ে যাবে।

দুধ

একটি কাপে একটু দুধ গরম করুন। তারপর এক টুকরা তুলা নিয়ে তা দুধে ভিজিয়ে আস্তে আস্তে এলকানাযুক্ত চোখের উপর বুলিয়ে নিন। যতটা গরম দুধ ব্যবহার করা সম্ভব হয়, ততই ভালো।

এভাবে মুছতে থাকুন, যতক্ষন না দুধটুকু ঠান্ডা হয়ে যায়। তারপর, কুসুম গরম পানি দিয়ে চোখ ধুয়ে নিন। আপনার চোখ দুধ দিয়ে পরিস্কার করার আগে অবশ্যই হাত ভালভাবে ধুয়ে নিবেন। কারণ, হাতে ময়লা থাকলে তা চোখের সংক্রমণ বাড়িয়ে দিবে।

রসুনের রস

এলকানার চিকিৎসায় আপনি চাইলে রসুনের তেল অথবা এমনকি রসুনের কোয়া ছেঁচে যেকোনো ভাল তেলের সাথে মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন। সংক্রমিত জায়গায় সকাল ও সন্ধ্যায় ব্যবহার করতে হবে। এভাবে ব্যবহার করলে আপনি রসুনের এন্টি-ব্যাক্টেরিয়াল ও এন্টি-সেপ্টিক উপাদান সমূহের গুণ দেখতে পাবেন।

রসুনের পেস্ট আপনার চোখের পাতায় অথবা চোখের নিচের অংশে ব্যবহার করতে পারেন, যেখানে এলকানা দেখা দিয়েছে।

৫ ঘণ্টা শুকানোর জন্য লাগিয়ে রাখুন, তারপর কুসুমগরম পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। পরের দিনই দেখতে পাবেন আপনার চোখের ইনফেকশন ভালো হয়ে গেছে এবং এলকানা দূর হয়ে গেছে!

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: