Skip to content

কিভাবে চুল পড়া ৫০ ভাগ কমিয়ে আনবেন

চুল পড়া একটি স্বাভাবিক প্রাকৃতিক প্রক্রিয়া। মানুষের চুল চার পাঁচ মাস পর পরই নতুন করে গজায়। কিন্তু হঠাৎ করে যদি কারো অনেক চুল পড়তে থাকে ও মাথায় টাক দেখা দেয়, তাহলে এটা বেশ বিব্রতকর ও দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

botlle-castor-oil-with-fruit-seeds-and-leaf-2
এক বোতল ক্যাস্টর অয়েলের সাথে ফল, বীজ ও পাতা।

অতিরিক্ত চুল পড়া বেশ অস্বাভাবিক এবং এগুলোর পেছনে অনেক ধরনের কারণ থাকতে পারে, যেমন:

  • বয়স হওয়া।
  • ইমিউন ডিজিস
  • পলিসিসটিক ওভারি সিনড্রোম।
  • থাইরয়েড ডিসঅর্ডার
  • হরমোনের ভারসাম্যহীনতা।
  • সংক্রামক রোগ
  • অপুষ্টিজনিত রোগ
  • অতিরিক্ত ধূমপান
  • অতিরিক্ত মানসিক চাপ

এমন অনেক প্রাকৃতিক সমাধান আছে যা দিয়ে আমরা এই সমস্যা দূর করতে পারি। এই রচনায় আমরা পুনরায় চুল গজাতে পারে এমন একটি প্রাকৃতিক রেসিপি নিয়ে লিখব:

চুল পড়া বন্ধের রেসিপি:

দরকারি উপকরণ সমূহ:

  • একটি ডিমের কুসুম
  • ২ টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল
  • ১ টেবিল চামচ মধু

প্রস্তুত প্রণালী ও ব্যবহার:

সবগুলো উপাদান একটি বোলে রাখুন এবং এবং ভালো করে মিশাতে শুরু করুন। আপনার চুলের গোড়ায় মিশ্রণটি লাগান এবং ধীরে ধীরে সম্পূর্ণ চুলে লাগিয়ে নিন। একটি শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে পুরো মাথা ঢেকে নিন এবং ২ ঘণ্টা এভাবেই রেখে দিন।

তারপর আপনার মাথা কোন হালকা ধরনের শ্যাম্পু অথবা কন্ডিশনার ব্যবহার করে ধুয়ে ফেলুন। এই প্রাকৃতিক উপাদানটি সপ্তাহে একবার করে ২ মাস ব্যবহার করুন। দেখবেন, এই সময়ের মধ্যে আপনার চুল পুষ্টিতে ঝলমলে হয়ে উঠেছে এবং এর বৃদ্ধি ও বেড়েছে।

স্বাস্থ্যগত উপকারিতা:

রেসিপিতে ব্যবহৃত তিনটি উপাদান একটি আদর্শ মিশ্রন তৈরী করে, যা স্বাস্থ্যোজ্জ্বল এবং দ্রুত বর্ধনশীল চুলের জন্য উপকারী। নিচের প্রত্যেকটির উপাদানের উপকারিতা দেয়া হলো।

। ডিমের কুসুমঃ ডিমের কুসুমে মিনারেল (ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম আয়রন পটাসিয়াম) এবং ভিটামিন সমূহ (এ বি৬ b12 ডি ই কে) ও এমিনো এসিডসমূহ আছে। এই সবগুলো উপাদান আপনার চুলের জন্য বেশ উপকারী।

২। ক্যাস্টর অয়েলঃ ক্যাস্টর অয়েলে আছে শক্তিশালী এন্টি-অক্সিডেন্ট ও এন্টি ইনফ্লামেটরি প্রপার্টিসমূহ আছে যা আপনার ত্বককে শুষ্কতা থেকে মুক্তি দেয় এবং চুলের বৃদ্ধি বাড়ায়।

৩। মধুঃ মধুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি১, বি২, বি৬, বি১২, পি, সি, পিপি, ভিটামিন কে, প্রো ভিটামিন এ, ফলিক এসিড এবং অন্যান্য উপাদান আছে। এই ভিটামিনগুলো আপনার চুল ও চুলের গোড়া মজবুত করবে এবং চুলের মসৃণ সিল্কি ভাব নিয়ে আসবে।

এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলোর ব্যবহারে আপনার কোন ধরনের ক্ষতি হবে না। কিন্তু চুল পড়া যথেষ্ট পরিমাণে কমে যাবে। এবং আপনি এই রেসিপিটি খুব সহজেই তৈরি করে নিতে পারেন এবং উপাদান গুলো বেশ সাশ্রয়ী। তাই চুল পড়া কমাতে আজই এই রেসিপিটি ব্যবহার করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: