Skip to content

দরূদে ইব্রাহীম কি এবং কখন পড়বেন

যারা নিয়মিত নামায পড়ে থাকেন তাঁরা দরূদে ইব্রাহীমের সাথে নিশ্চয়ই পরিচিত আছেন। নামাযের বৈঠকে এই দরুদটি পড়তে হয়। দরূদ ও সালাম হচ্ছে নবীজীর মর্যাদা, ইজ্জত ও বুজুর্গির প্রতি লক্ষ্য করে তার প্রতি ভক্তি ও শ্রদ্ধা সহকারে সালাম পেশ করা। এই দরূদে কেবল মহানবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামই নয় বরং আল্লাহর প্রিয় বন্ধু ইব্রাহীম (আঃ) এর প্রতি ও মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সকল আহল ও পরিবারবর্গের প্রতিও দরুদ ও সালাম পেশ করা হয়।

আমরা সকলেই জানি, ইব্রাহীম আলাইহিস সাল্লামের বংশধর ইসমাইল আলাইহিস সালামের বংশে আমাদের প্রান প্রিয় নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম জন্মগ্রহণ করেছেন। তাই ইব্রাহীম (আঃ) এর পরিবারবর্গ বলতে তার বংশের সকল জানা ও অজানা সকল নেক বান্দাদের প্রতি সালাম পেশ করা হয়।

আশা করি, দরূদে ইব্রাহীম সকলেরই জানা আছে। তবে যদি আপনার জানা না থাকে, তাহলে নিচে তার হুবহু আরবী ও বাংলা উচ্চারণ তুলে ধরা হলো।

اَللّٰھُمَّ صَلِّ عَلٰی مُحَمَّدٍ وَّعَلٰٓی اٰلِ مُحَمَّدٍ کَمَا صَلَّیْتَ عَلٰٓی اِبْرَاھِیْمَ وَعَلٰٓی اٰلِ اِبْرَاھِیْمَ اِنَّکَ حَمِیْدٌ مَّجِیْدٌ اَللّٰھُمَّ بَارِکْ عَلٰی مُحَمَّدٍ وَّعَلٰٓی اٰلِ مُحَمَّدٍ کَمَا بَارَکْتَ عَلٰٓی اِبْرَاھِیْمَ وَعَلٰٓی اٰلِ اِبْرَاھِیْمَ اِنَّکَ حَمِیْدٌ مَّجِیْدٌ

আল্লাহুম্মা সাল্লি আলা মুহাম্মাদিও ওয়া আলা আ’লি মুহাম্মাদ। কামা সল্লাইতা আ’লা ইব্রাহিমা ওয়া আ’লা আলি ইব্রাহীম। ইন্নাকা হামিদুম মাজীদ। আল্লাহুম্মা বারিক আ’লা মুহাম্মাদিও ওয়া আ’লা আলি মুহাম্মাদ। কামা বারাকতা আ’লা ইব্রাহিমা ওয়া আ’লা আলি ইব্রাহীম। ইন্নাকা হামিদুম মাজীদ।

দু’আর শুরুতে ও শেষে নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের উপর দরুদ ও সালাম পাঠ করা একটি অন্যতম আদব। এভাবে দু’আ করলে দু’আ কবুল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। নবীজীর উপর দরুদ ও সালাম পাঠ করা দু’আর উপর সীলমোহরের ন্যায়।

এছাড়াও দরুদ ও সালাম পাঠ করার অসংখ্য উপকারিতা আছে। হাদীসে বর্ণিত আছে, নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন যে, যে ব্যক্তি আমার উপর একবার দরুদ পড়বে, আল্লাহ তায়ালা তার উপর দশটি রহমত নাযিল করবেন, তার দশটি গুনাহ মাফ করবেন, দশটি নেকী তার আমলনামায় লেখা হবে। জান্নাতে তার জন্য দশ গুণ মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে।

এছাড়াও হাদীসে আরো এসেছে যে, যে ব্যক্তি নবীয়ে কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের উপর একবার দরুদ পড়বে, আল্লাহ তায়ালা ও তার ফেরেশতাগণ তার উপর ৭০ (সত্তর) বার রহমতের দু’আ করে থাকেন। সকল দু’আর শুরু ও শেষে দরুদ শরীফ পাঠ করলে এর মাঝে যা কিছু চাওয়া হয়, আল্লাহ তায়ালা তা অবশ্যই কবুল করে থাকেন।

আল্লাহ পাক আমাদেরকে বেশী বেশী দরুদ শরীফ পাঠ করা ও এর উপর আমল করার তাওফীক দান করুন। আমিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: