Skip to content

৩ টি সহজ স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক রেসিপি যা সব ধরণের ত্বকের জন্য উপযোগী

স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক ত্বকের জন্য বেশ উপকারী

স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক রেসিপির ৩ টি প্রকার

স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক ত্বকের জন্য দারুণ উপকারী। আজ আমরা ৩ টি সহজ রেসিপি নিয়ে আলোচনা করবো যা তৈলাক্তসহ সব ধরণের ত্বকের উপযোগী। শীতকালে অনেকেরই ত্বকে বিভিন্ন সমস্যা দেখা যায়। এর মধ্যে শুষ্ক ত্বকেই বেশী সমস্যা দেখা দেয়। শীতকালে শুষ্ক ত্বক ফেটে যায় ও ত্বকের উপরিভাগে ছোপ ছোপ দাগ দেখা দেয়। ধুলাবালির পরিমাণ বেশী হওয়ায় তৈলাক্ত ত্বকও সমানভাবে আক্রান্ত হতে দেখা যায়। আর এ সমস্যাগুলো সমাধান করতে স্ট্রবেরী দারুণ কাজে লাগে।

১। স্ট্রবেরী ও লেবুর মিশ্রনে অয়েল কন্ট্রোল ফেসমাস্ক

স্ট্রবেরী থেঁতো করে লেবুর রস মিশিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন চমৎকার ফেসিয়াল মাস্ক। যা আপনার ত্বক থেকে সেবাম গ্রন্থির অতিরিক্ত তেল নিঃসরণ কমিয়ে ভেতর থেকে ত্বকের লোমকূপ ও ত্বক পরিস্কার করবে। লেবুর রস একটি প্রাকৃতিক এস্ট্রিজেন্ট যা মুখের কালো দাগ এবং ক্ষত হালকা করতে সাহায্য করে। স্ট্রবেরিতে থাকা আলফা হাইড্রোক্সিল এসিড ত্বকের অতিরিক্ত তেল নিঃসরণ কমিয়ে ব্রণ এবং ব্ল্যাকহেডস দূর করে।

ফেসমাস্কটিতে থাকা অন্যান্য উপাদান, যেমন লেবুর আরও কিছু উপকারিতা হচ্ছেঃ

উপাদান উপকারিতা
লেবুর রসপ্রাকৃতিক এস্ট্রিজেন্ট। এটা মুখের ত্বক থেকে এবং লোমকূপ থেকে অতিরিক্ত তেলের নিঃসরণ কমায়। লেবুর রসে আছে এন্টি-ব্যাক্টেরিয়াল উপাদান সমূহ যা ব্রণের জন্য দায়ী জীবাণু ধ্বংস করে। এটাও ত্বকের দাগ ও ক্ষত হালকা করতে সাহায্য করে।

টিপস:

  • ফেসিয়াল করার সময় চুলগুলো সব একত্রে পনিটেইল করে বেঁধে নিন। যাতে আপনার চোখে মুখে না এসে পড়ে।
  • একটি এপ্রন বা পুরাতন টিশার্ট পড়ে নিন, যাতে ফেসিয়ালটি আপনার কাপড় নষ্ট না করে।
  • হাত দিয়ে মুখে ব্যবহার করার আগে স্টিমিং বা গরম পানির ভাপ নিন। এটা আপনার ত্বকের বন্ধ লোমকূপগুলোকে খুলে দিবে। ফলে মাস্ক দেয়ার পর তা অতি সহজে ত্বকের গভীরে প্রবেশ করবে।

উপাদান

  • ২-৩ টি থেঁতো করা স্ট্রবেরী।
  • ১ চামচ লেবুর রস।

নির্দেশনা

১। উপরের উপাদানগুলো একটি ছোট্ট মিক্সিং বোলে একত্রে মেশান।

২। মুখ পরিস্কার করে এই মিশ্রণটির প্রলেপ দিন।

৩। ১৫ মিনিট বসে থাকুন।

৪। ১৫ মিনিট সময় শেষ হলে হালকা গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিন। তারপর পরিস্কার তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন। লোমকূপ বন্ধ করতে আবার ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিন।

২। ময়েশ্চারাইজিং স্ট্রবেরি ও ক্রিম

স্ট্রবেরি, মধু ও ক্রিম মিশিয়ে একটি আর্দ্র ফেসমাস্ক তৈরি করতে পারেন, যা আপনার একই সাথে আর্দ্র করবে ও ত্বকের উজ্জলতা বাড়াবে। ঠান্ডার সময় এই ফেস্ক মাস্ক আপনি মুখে লাগাতে পারেন। কারণ, ক্রিম আপনার ত্বকের আর্দ্রতা বাড়াতে সাহায্য করবে যা শীতের শুষ্ক আবহাওয়া থেকে ত্বকের জন্য দারুণ রক্ষাকবচ। আর মধুতে আছে কম মাত্রার অ্যাস্ট্রিজেন্ট ও এন্টিসেপ্টিক প্রপার্টি যা ত্বকের জীবানু ও দাগ ময়লা দূর করে যে কারণে সাধারনত ব্রণ হয়ে থাকে।

নিচের টেবিলে এই ফেসমাস্কে থাকা অতিরিক্ত অন্যান্য উপাদানগুলো দেয়া হলো:

উপাদানউপকারিতা
মধুত্বকের আর্দ্রতা বাড়ায়। ত্বক উজ্জ্বল ও ফর্সা করে। এতে আছে এন্টি ব্যাকটেরিয়াল ও এন্টি সেপটিক উপাদান যা ত্বকের উপরিভাগ থেকে জীবাণু ধবংস করে। শুষ্ক ত্বকের পুষ্টি যোগায়।
ক্রিমশুকিয়ে যাওয়া ত্বককে পুষ্টি জোগায় ও পুনর্জীবিত করে। শুকনো ত্বকে আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনে এবং পুষ্টি যোগায়।

টিপস:

  • স্ট্রবেরি ফল নেয়ার সময় সবচেয়ে পাকা ফল নিতে হবে।
  • আপনার ভ্রু এবং হেয়ারলাইন এড়িয়ে চলুন, যেহেতু এতে ভ্রু হালকা করার বৈশিষ্ট্য আছে।
  • আপনার মুখের ত্বক যদি শুষ্ক হয় ও চামড়া উঠে, তাহলে ক্রিম ব্যবহার করুন এবং ত্বকে দেয়ার দুই মিনিট আগে মুখ ক্রিম দিয়ে ম্যাসেজ করে নিন।

উপাদান

  • ২-৩ টি থেঁতো করা স্ট্রবেরি।
  • ১ টেবিল চামচ ফ্রেশ ক্রিম।
  • ১ চা চামচ মধু।

পদ্ধতি

  ১। কাটা চামচের পিছনের অংশ দিয়ে স্ট্রবেরিগুলো থেঁতো করে নিন।

  ২। সবগুলো উপাদান একটি ছোট্ট বোলে মিশিয়ে নিন।

  ৩। মুখের ত্বকে ও গলায় মিশ্রণটি লাগান এবং যতক্ষন পারা যায় বা না শুকায় ততক্ষন লাগিয়ে রাখুন।

  ৪। এবার হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। বিশেষ করে থুঁতনির নিচের অংশ ধুয়ে ফেলুন। ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন যা মুখের লোমকূপ সংকুচিত করবে। এবং পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে মুছে নিন।

৩। স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক স্ক্রাবার

এই ফেসমাস্কে একইসাথে স্ট্রবেরী ও মধু আছে যা আপনার লোমকূপ পরিষ্কার করার পাশাপাশি ত্বকের ব্রণ ও ফুসকুড়িও দূর করবে! স্ট্রবেরিতে থাকা হালকা গুঁড়ো গুঁড়ো অংশ আপনার ত্বক থেকে ময়লা, মরা কোষ ও অতিরিক্ত তেল খুব চমৎকারভাবে দূর করবে।

মধু খুব কমনীয়ভাবে আপনার মুখ পরিষ্কার করবে এবং এটা ফলের নির্যাসের সাথে মিলিত হওয়ার পর ত্বক আরও নিখুঁতভাবে পরিষ্কার করতে সক্ষম। নিচের টেবিল থেকে এই মাস্কের মধু ও অন্যান্য উপাদানের উপকারিতা দেখে নিন:

উপাদানউপকারিতা
মধুখুব কমনীয় ত্বক পরিষ্কারক ও ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। ত্বকের কোষের ভিতর আর্দ্র রেখে ত্বক খুব মসৃণ ও পরিপুষ্ট করে তোলে। এছাড়াও ব্রণের কারণে তৈরি হওয়া কালো দাগ ও গর্ত দূর করে।

টিপস

  1. স্ট্রবেরির গোড়ায় থাকা পাতা ছিঁড়বেন না। স্ট্রবেরির পাতায় থাকা খসখসে অংশ ত্বকের মরা কোষ দূর করতে ও পরিষ্কার করতে সাহায্য করবে।
  2. সবচেয়ে ভালো ফলাফলের জন্য চাকভাঙ্গা কাঁচা মধু ব্যবহার করুন। প্রক্রিয়াজাত মধু ব্যবহারে ত্বকে জ্বালাপোড়া হতে পারে।
  3. কোনও মাস্ক ব্যবহারের আগে প্যাচ টেস্ট করে নিন। এটা হচ্ছে কনুইয়ের উপরিভাগ বা হাতের কব্জিতে অল্প পরিমাণে মাস্ক লাগিয়ে দেখে নিন কোনও এলার্জি দেখা যাচ্ছে কিনা।

উপাদান

  • ২ থেকে ৩ টি থেঁতো করা স্ট্রবেরী।
  • ১ টেবিল চামচ

যেভাবে বানাবেন

  ১। একটি ছোট বোলে, ২ থেকে ৩ টি পাকা স্ট্রবেরী নিয়ে তা থেঁতো করুন।

  ২। এর সঙ্গে অল্প পরিমাণে মধু মিশিয়ে একটি মসৃণ পেস্ট তৈরি করুন।

  ৩। এবার স্ট্রবেরি ফেসমাস্ক আপনার মুখের ত্বকে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে লাগান। মুখে এই মাস্কটি অন্ততপক্ষে ২ মিনিট ধরে ম্যাসেজ করতে থাকুন। ১৫ মিনিট ধরে মাস্কটি মুখে লাগিয়ে রাখুন।

৪। প্রথমে হালকা কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন তারপর ঠাণ্ডা পানির ঝাপ্টা দিয়ে মুখের লোমকূপ বন্ধ করে দিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: