Skip to content

কিভাবে রান্না করবেন ইলিশ মাছের দোপেয়াঁজা

উপকরণঃ

১.ইলিশ মাছ ৪ টুকরো।

২.মোটা পেয়াঁজকুচি-১কাপ।

৩.হলুদ গুড়াঁ-১/২ চা চামচ।

৪.মরিচ গুড়াঁ-১/৪ চা চামচ।

৫.চিরে নেওয়া কাঁচামরিচ -৫টি।

৬.আস্ত কাঁচামরিচ -৩টি।

৭.তেল-৩লিটার।

৮.পানি-৫ টেবিলচামচ বা পরিমাণমতো।

৯.লবণ-স্বাদমতো।

প্রনালীঃ ইলিশ মাছের দোপেয়াজা তৈরীর জন্য প্রথমে ৪ টুকরো ইলিশ মাছ নিতে হবে।এরপর টুকরোগুলোকে লবণ ও হলুদ দিয়ে ভালো করে মেখে নিতে হবে।এরপর (৫-১০) মিনিট রেখে দিতে হবে যাতে করে মাছের আষ্টে গন্ধ আর না থাকে। এরপর একটি প্যানে তেল গরম করে নিতে হবে। তেলটা হালকা গরম হয়ে আসলে মাছগুলো ছেড়ে দিয়ে হালকা ভেজে নিতে হবে।ইলিশ মাছ বেশি কড়া করে ভাজা যাবে না এতে মাছের ভিতরের যে তেল থাকে তা পুরোপুরি বের হয়ে যায়।ফলে মাছটি খেতে বেশি ভালো লাগে না।এছাড়া ইলিশ মাছ যেহেতু তৈলাক্ত মাছ তাই একে অতিরিক্ত তেলে ভাজার প্রয়োজন নেই।

screenshot_20201024-2047542-9653577
মজাদার ইলিশের দোপেয়াঁজা

মাছগুলো ভাজা হয়ে গেলে একে একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে। ঐ একই তেলে ফোড়ন দেয়ার জন্য কিছু কালিজিরা, সাথে ৫টি কাঁচা পাকা মরিচ মাঝে চিড়ে তেলে দিয়ে দিতে হবে।এগুলো সামান্য নেড়েচেড়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে। চুলার আচ বেশি রাখা যাবে না। এরপর একটু মোটা করে কাটা ১ কাপ পেঁয়াজ কুচি দিতে হবে। এরপর মিডিয়াম আচে একে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করতে হবে। যখন পেয়াজগুলো নরম হয়ে আসবে এবং পরিমাণেও কমে আসবে তখন ৩ ভাগের ২ ভাগ আলাদা করে তুলে রাখতে হবে।খেয়াল রাখতে হবে সবগুলো কাচামরিচ ও তুলে রাখতে হবে যাতে এগুলো গলে না যায়। এবার বাকি যে ১ ভাগ পেয়াজ থেকে গেল সেগুলো পেয়াজ বেরেস্তার মতো করে ভেজে নিতে হবে।এরপর এতে আধা চা চামচ হলুদ গুড়া ও সামান্য মরিচ গুড়া দিয়ে তেলটিতে খুব ভালোভাবে নাড়াচাড়া করে দিতে হবে। এরপর কসানোর জন্য পরিমাণমতো পানি দিতে হবে। কিছুক্ষণ কসানোর পর চুলার আচ মিডিয়াম লোতে দিয়ে দিতে হবে। এরপর এতে স্বাদমতো লবণ দিয়ে নাড়াচাড়া করে দিতে হবে।

মসলা কসানো হয়ে গেলে এতে ভাজা ইলিশ মাছগুলো দিয়ে দিতে হবে। ইলিশ মাছ রান্নার জন্য বেশি মসলা ব্যবহার করা উচিত না এতে করে ইলিশ মাছের গন্ধ নষ্ট হয়ে যায়। ইলিশ মাছগুলো মসলায় দিয়ে ২ মিনিট অপেক্ষা করে এগুলোকে উল্টে দিতে হবে। এরপর এতে উঠিয়ে রাখা পেয়াজ আর মরিচ ভাজা পুরোটা দিয়ে দিতে হবে। এরপর এতে ২-৩ টা গোটা কাচামরিচ দিতে হবে ফ্লেভারের জন্য। তারপর পরিমাণমতো পানি দিয়ে ঢেকে (৫-৭) মিনিট মিডিয়াম আচে জাল করে নিতে হবে। যতটুকু ঝোল রাখার দরকার ততটুকু পরিমাণ ঝোল শুকিয়ে নিতে হবে। রান্না হয়ে গেলে গরম গরম দোপেয়াঁজা ভাত বা পোলাওয়ের সাথে পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: