তৈরী করুন পছন্দের আমের মোরব্বা

কাঁচা আমের মৌসুম যদিও প্রায় শেষ, কিন্তু বেশ কিছু আশ্বিনী জাতের আম এখনও কাঁচা আছে। এসব গাছে দেরীতে বোল ধরে ও বর্ষার মাঝামাঝি সময়ে পাকে। তাই দেরী না করে বানিয়ে নিতে পারেন আপনার পছন্দের আমের মোরব্বা। এ ধরনের মোরব্বা বানাতে আপনাকে পরিপক্ক আম নিতে হবে যার আঁটি শক্ত হয়েছে। আর যদি আঁশযুক্ত হয় তাহলে তো কথাই নেই। এ ধরনের আমই মোরব্বার জন্য সবচেয়ে ভালো ও আদর্শ।

আসুন জেনে নেই মোরব্বা তৈরীতে কি কি উপকরন লাগবেঃ

উপকরণ :

  • বড় কাঁচা আম ৭-৮টি,
  • চিনি দেড় কেজি,
  • ফিটকিরি গুঁড়া ১ চা চামচ এবং
  • পানি পরিমাণ মতো,
  • তেজপাতা ২টি,
  • এলাচ ১ টুকরা,

প্রস্তুত প্রণালি : আম ভালো করে ধুয়ে নিন। আমগুলোকে পুরু করে খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এরপরে মাঝখান দিয়ে দুই টুকরো বা চার টুকরো করে আটি ফেলে দিয়ে ভাল করে কেচতে হবে কাঁটা চামচ বা টুথপিক দিয়ে ।

সব আম ভাল করে কেচা হলে প্রথমে পানিতে ডুবিয়ে রাখতে হবে। তিন ঘন্টা পরে পানি ফেলে দিয়ে আবার নতুন পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। এরপর চুন বা ফিটকিরি মেশানো পানিতে ২-৩ ঘন্টা রেখে আবার পরিস্কার পানিতে ডুবিয়ে রাখতে হবে।

এই ভাবে কয়েকবার পানি চেঞ্জ করতে হবে। আম চেপে চেপে পানি ঝরিয়ে বারবার পানি চেঞ্জ করতে হবে। পুরো এক দিন ভিজাতে হবে যেন টক পানি না থাকে। এবার পানি থেকে তুলে বাতাসে বা হালকা রোদে দিয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে।

এরপর আপনার স্বাদমত চিনিতে পরিমানমত পানি দিয়ে চুলে অল্প আছে জ্বাল দিতে থাকুন। চিনি গলে গেলে এলাচ, দারচিনি, লবঙ্গ, তেজপাতা দিয়ে ভালো করে ফুটিয়ে নিতে হবে । সিরার উপরে উঠে আসা ফেনাগুলো ফেলে দিতে হবে, এবার সিরা একটু ঘন হয়ে আসলে আমগুলো ছেড়ে দিতে হবে। এরমধ্যে, সামান্য লবন দিন। ৫/৬ মিনিট জ্বাল দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।

পরের দিন আবার এমন করে ৫/৬ মি: জ্বাল দিন, হালকা করে আমগুলো নেড়ে চেড়ে দিন। খেয়াল রাখতে হবে যেন বেশি সময় জ্বাল না হয়,তাহলে গলে যেতে পারে। এভাবে তিন দিন জ্বাল দিয়ে বেশ চিনি গায়ে গায়ে লেগে শক্ত হয়ে আসার পরে ঠান্ডা করে বয়ামে ভরে রোদে দিন। দু তিন দিন রোদে দিলেই তৈরী হয়ে যাবে মজার আমের মোরব্বা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *