নারকেল তেলের ২০ টি উপকারিতা

নারিকেল বা নারিকেল তেলের সঙ্গে পরিচিত নয়, এমন কোনও বাঙ্গালী মেয়ে খুঁজে পাওয়া মুশকিল। চুলের যত্নে এক নম্বর উপাদান হচ্ছে নারিকেল তেল। গ্রামে তো বটেই শহরেও এখন অনেক বাড়িতেই নারিকেল গাছ শোভা পায়। আপনি কি জানেন নারিকেলের শাস এবং ডাবের পানির পাশাপাশি তেলও মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী? হ্যাঁ, ঠিকই শুনেছেন। নারিকেলের তৈরি বিভিন্ন মুখরোচক খাবার খেলেও আমরা সাধারণত নারকেল তেল মাথায় ও চুলের যত্নেই ব্যবহার করে থাকি। খাওয়ার কথা ভুলেও ভাবি না। চলুন দেখে নেই নারিকেল তেলের ২০ টি স্বাস্থ্য উপকারীতাঃ

coconut-1771527_640-9630165

১। আলঝেইমার রোগের এক নম্বর প্রাকৃতিক ঔষধ।

২। হৃদরোগ এবং ব্লাড প্রেশার প্রতিরোধ করে।

৩। ইউরিনারী ট্র্যাক্ট ইনফেকশন এবং কিডনী ইনফেকশন দূর করে ও লিভার সুরক্ষিত রাখে।

৪। প্রদাহজনিত জ্বালা-পোড়া ভাব ও আর্থ্রাইটিস কমায়।

৫। ক্যান্সার প্রতিরোধ ও আরোগ্য করে।

৬। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

৭। স্মৃতিশক্তি এবং মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ায়।

৮। শক্তি ও সহ্যক্ষমতা বাড়ায়।

৯। হজমশক্তি বাড়ায় এবং অন্ত্রের আলসার উপশম করে এবং আলসারের জন্য দায়ী উপাদান সমূহ কমাতে সাহায্য করে।

১০। ত্বকের বিভিন্ন সমস্যা দূর করে (পোড়া, একজিমা, খুশকি, ডারমাইটিস ও সোরাইসিস)।

১১। মুখের দুর্গন্ধ দূর করে ও দন্তক্ষয় রোধ করে।

১২। গল ব্লাডার ও প্যানক্রিয়াটিসের উপসর্গ উপশম করে।

১৩। অস্টিওপোরোসিস বা হাড়ক্ষয় রোগ প্রতিরোধ করে।

১৪। টাইপ ২ ডায়বেটিস প্রতিরোধ করে।

১৫। ওজন কমানোর জন্য নারিকেল তেল কার্যকরী।

১৬। পেশী গঠনে সাহায্য করে এবং দেহের মেদ কমায়।

১৭। চুলের যত্নে নারিকেল তেল ব্যবহার করা হয়।

১৮। ক্যান্ডিডা এবং ছত্রাকের সংক্রমন রোধ করে।

১৯। বার্ধক্য রোধ করে।

২০। হরমোনের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

তবে, নারিকেল তেল ব্যবহার করার সময় অবশ্যই যে বিষয়টি মাথায় রাখবেন, তা হচ্ছে এটার উৎপাদন প্রক্রিয়া। কারণ খাঁটি নারিকেল তেল কিছুটা হালকা সোনালী রঙের হয়ে থাকে। আর যেসব তেল একেবারে সাদা থাকে, সেগুলোতে রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করে সাদা করা হয়। এরকম তেল ব্যবহার করলে উপকারের চেয়ে ক্ষতি হবার সম্ভাবনাই বেশি থাকে। তাই অবশ্যই নারিকেল তেল ১০০% খাঁটি কিনা তা নিশ্চিত হয়ে তবেই খাবেন অথবা ব্যবহার করবেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *