লেবুর তৈরি সাবান এবার ঘরেই বানিয়ে নিন

ঘরে বানানো লেবুর তৈরি সাবান

লেবু দিয়ে রুপচর্চা করার কত পদ্ধতিই তো জানা হয়েছে। এবার চলুন দেখে নেই কিভাবে ঘরে তৈরি করবেন লেবুর তৈরি সাবান।

লেবুর তৈরি এই সাবানটির সুগন্ধ অত্যন্ত সুন্দর, যা আপনি অবশ্যই বাসায় বানিয়ে দেখতে পারেন। এই সাবানে লেবুর খোসার ব্যবহার সাবানের গায়ে একটি সুন্দর টেক্সচার নিয়ে আসবে, এবং লেবুর তরতাজা সুঘ্রাণ আপনাকে বেশ চাঙ্গা করে তুলবে। এতে মাত্র তিনটি উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে, যা বানানো খুবই সহজ। আপনি চাইলে এই সাবানটি নিজেও ব্যবহার করতে পারেন। অথবা পাড়া-প্রতিবেশী ও আত্মীয় স্বজনকে উপহার হিসেবেও দিতে পারেন।

যেভাবে বানাবেন হাতে তৈরি লেবুর সাবান

হাতে তৈরি লেবুর সাবান বানাতে যে খুব বেশী উপকরনের প্রয়োজন নেই, তা আমি আগেই বলেছি। তবে এই সাবান তৈরিতে তিনটি অত্যাবশ্যকীয় উপাদান লাগবে। সেগুলো হচ্ছে গোটস মিল্ক সোপ বেইজ বা ছাগলের দুগ্ধ থেকে উৎপাদিত সাবান (এই উপাদানটি ইউএস ও বাহিরের দেশগুলোতে পাওয়া যাবে, কিন্তু আমাদের দেশে সচরাচর পাওয়া যায় না। তাই, এর পরিবর্তে আপনি সাধারণ গ্লিসারিন সাবান ব্যবহার করতে পারেন)। এছাড়াও লাগবে, লেমন এশেনসিয়াল তেল ও লেমন যেস্ট (লেবুর খোসা শুকিয়ে গুঁড়া করলেই লেমন যেস্ট তৈরি হয়ে যাবে)।

ঘরে তৈরি লেবুর সাবান বানাতে যেসব উপকরন লাগবেঃ

উপকরণঃ

১। দেড় কাপ ছাগীর দুদ্ধ থেকে উৎপাদিত সোপ বেইজ অথবা সিয়া বাটার সোপ বেইজ, যেগুলো টুকরা টুকরা করে কাটা থাকে।

২। ৪-৬ ফোঁটা লেমন এসেনশিয়াল তেল

৩। ৩-৪ টি শুকনা লেবুর খোসা গুঁড়া বা লেমন যেস্ট।

প্রথম ধাপঃ

প্রথমে সাবানগুলো ছোট ছোট টুকরা টুকরা করে কেটে নিতে হবে। এরপর মাইক্রোওয়েভ ওভেনে দিয়ে ৩০ সেকেন্ড বিরতিতে সম্পূর্ণ গলিয়ে নিন। এই কাজে মোটা কাঁচের মেজারিং জার ব্যবহার করতে পারেন। এই রেসিপিতে যেই পরিমাণ দেয়া হয়েছে, তাতে তিনটি সাবানের বার বানানো যাবে। এজন্য ছাগী দুদ্ধের ১৫ কিউব সাবান লাগতে পারে।

দ্বিতীয় ধাপঃ

এক মিনিট ধরে সাবান গলাতে হবে। যদি সম্পূর্ণ না গলে তবে আরো ১৫-৩০ সেকেন্ড যুক্ত করুন।

তৃতীয় ধাপ:

সাবানের কিউবগুলো গলে গেলে তাতে আরো কয়েক ফোঁটা লেমন এসেনশিয়াল তেল দিন, ভালো করে নাড়তে থাকুন।

চতুর্থ ধাপ:

এবার সাবান মোল্ডে ঢেলে নিন এবং প্রায় এক ঘন্টা ধরে এটাকে জমতে দিন। সাবান বসে গেলে এবার মোল্ড উলটা করে চাপ দিয়ে সাবান বের করে নিন।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

সাবান যদি অনেকদিন ধরে সংরক্ষন করতে চান, তবে এতে লেমন যেস্ট মেশাবেন না। এর পরিবর্তে চাইলে হলুদ প্রাকৃতিক রং মেশাতে পারেন। এছাড়াও এসেনশিয়াল তেলে লেবুর সুঘ্রাণ বেশী থাকায় লেমন যেস্ট না মেশালেও হবে।

এই সাবানটি সুন্দর কাগজ বা র‍্যাপিং পেপারে মুড়িয়ে আপনার প্রিয়জনকে উপহার দিতে পারেন। এতে তাঁরা অনেক খুশী হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *