আল্লাহর পথে আয়ের এক তৃতীয়াংশ ব্যয় করার পুরষ্কার

রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের একটি হাদীস মুসলিম শরীফে বর্নিত আছে, তিনি বলেছেন, বনী ইসরাইলের এক ব্যাক্তি জঙ্গলে কোনো প্রয়োজন বশত: গিয়েছিলো, এবং সে সেখানে ঘুরাঘুরি করছিলো।

এমন সময়, হঠাৎ সে মেঘমালার মধ্য থেকে একটি আওয়াজ শুনতে পেলো যে একজনের নাম ধরে বলা হচ্ছে, ‘অমুক ব্যক্তির বাগানে পানি দাও’।

এই আওয়াজ শোনার সাথে সাথে সে দেখতে পেলো, মেঘমালা একদিকে সরে যাচ্ছে। সেও মেঘের পিছু পিছু যাচ্ছিলো। সে দেখতে পেলো মেঘমালা এক ব্যক্তির বাগানের উপর গিয়ে থেমে গেলো, এবং প্রচুর পানি বর্ষন করলো।

এত পানি বর্ষিত হলো যে সব পানি একটি নালায় পরিনত হয়ে ছুটতে লাগলো। ঐ ব্যক্তিও ঐ পানির পিছনে পিছনে ছুটতে লাগলো। এমন সময় সে দেখতে পেলো, সেই লোকটা বেলচা দিয়ে পানি আটকে দিচ্ছে।

সে ঐ লোকটিকে জিজ্ঞেস করলো, তোমার নাম কি? সে যেই নামটি বললো, সেই  নামটিই সে মেঘের মধ্যে শুনতে পেয়েছে।

কিন্তু বাগানের মালিক তাকে পাল্টা প্রশ্ন করলো, কিন্তু তুমি আমার নাম কেন জিজ্ঞাসা করলে?

সে তাঁকে সম্পূর্ণ ঘটনা খুলে বললো, যে আমি এই মেঘের মধ্যে তোমার নাম শুনেছি যে, কেউ একজন বলছে, অমুকের বাগানে গিয়ে পানি বর্ষন করো। পরে আমি মেঘের পিছু পিছু হেঁটে এসে দেখলাম, এই মেঘ তোমার জমিতে পানি বর্ষন করলো।

তুমি কি এমন আমল করো, যা আল্লাহর কাছে এত বেশী প্রিয়?

যেহেতু তুমি জিজ্ঞাসা করলে, তাই আমাকে বলতেই হবে। আমি এইসব ফসল দেখাশোনা করি। এর একটি অংশ আল্লাহর পথে ব্যয় করি, একটি অংশ সন্তানদের জন্য রেখে দেই। এবং আরেকটি অংশ বাগানের কাজে লাগাই।

শিক্ষা: আল্লাহর পথে ব্যয় করলে আল্লাহ তায়ালা তাঁকে এমনভাবে সাহায্য করেন, যে তাঁর খবরও থাকে না। তাই এ কথা সত্য যে ব্যক্তি আল্লাহর অনুগত হয়ে যায়, আল্লাহ তায়ালা নিজে তাঁর সাহায্যকারী হয়ে যান। (মুসলিম শরীফের হাদীস অবলম্বনে লিখিত)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *