বিভিন্ন ধরনের সবজি দিয়ে তৈরি মজাদার নিরামিষ

পাঁচমিশালী সবজি রেসিপি

বিভিন্ন ধরনের সবজি দিয়ে মজাদার নিরামিষ রান্না করার অনেক রসিপি আছে। তবে এই রেসিপিটি একদমই ব্যতিক্রমী ও আলাদা। এতে অনেকগুলো সবজি মসলা ও চার রকমের ডাল ব্যবহার করা হয়েছে। এর ফলে সব্জির স্বাদ বহুগুণে বেড়ে যাবে। চলুন দেরী না করে দেখে নেই সবজি রান্না করতে কি কি লাগছে ও কিভাবে রান্না করবেনঃ

উপকরণঃ

  • ডাল- ৪ রকমের
  • তেল- ১কাপ
  • দারচিনি- ২টি
  • তেজপাতা- কয়েকটি
  • পেঁয়াজ কুচি- ১ কাপ
  • পেঁয়াজ বাটা- ৩ টেবিল চামচ
  • রসুন বাটা- ২ টেবিল চামচ
  • আদা বাটা- ১ টেবিল চামচ
  • জিরা বাটা- ১ টেবিল চামচ
  • কাঁচা মরিচ
  • মরিচ গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ
  • হলুদ গুঁড়া- ১ টেবিল চামচ
  • গরম মসলার গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ
  • ধনিয়ার গুঁড়া – ১ টেবিল চামচ
  • কাঁচা কাঁঠাল
  • মিষ্টি কুঁমড়া
  • আলু
  • কাঁচা পেঁপেঁ
  • গাঁজর
  • ডাটা
  • বেগুন
  • পটল
  • বরবটি
  • সিম
  • টমেটো
  • ঢেঁড়স
  • পুঁই শাক/যেকোন শাক
  • ধনিয়ার গুঁড়া-১ চা চামচ
  • জিরার গুঁড়া-১ চা চামচ
  • গরম মসলার গুঁড়া -১ চা চামচ
  • তেল – ২ টেবিল চামচ
  • পেঁয়াজ কুচি- ১ কাপ
  • পাঁচফোড়ন- ১ টেবিল চামচ
  • শুকনো মরিচ
  • ধনেপাতা কুচি

প্রণালিঃ

প্রথমে ১ টি ফ্রাইং প্যানে ৪ রকমের ডাল হাল্কা টেলে নিয়ে নিবেন। চুলার আঁচ লো টু মিডিয়ামে রেখে কিছুক্ষন টেলে নিন।খেয়াল রাখতে হবে যাতে ডাল পুড়ে না যায়। টালার পর উঠিয়ে একটি বাটিতে রেখে দিবেন। এর মধ্যে কিছুটা পানি দিয়ে ৩০ মিনিট ভিজিয়ে রাখবেন। ৩০ মিনিট পর ডাল গুলো ভালমত ধুয়ে নিবেন। চুলায় ১ টি পাতিলে ১ কাপ পরিমাণ তেল দিয়ে দিবেন। প্রথমে তেলে ২ টি দারচিনি ও কয়েকটি তেজপাতা দিয়ে দিবেন। কিছুক্ষন ভেজে নিবেন। ২ মিনিট ভেজে তার মধ্যে ১ কাপ পিয়াজ কুচি দিয়ে দিবেন। পেয়াজগুলোকে বাদামী করে ভেজে নিতে হবে। কম পরিমাণ সবজি রান্না করলে কম পরিমাণ মসলা দিতে হবে। স্বাদ অনুযায়ী লবণ দিতে হবে। এর মধ্যে পেয়াজ বাদামী হয়ে গেলে তাতে ৩ টেবিল চামচ পেয়াজ বাটা, ২ টেবিল চামচ রসুন বাটা, ১ টেবিল চামচ আদা বাটা এবং ১ টেবিল চামচ জিরা বাটা দিয়ে দিবেন। মসলা গুলো ভালমত কষিয়ে নিবেন যাতে গন্ধ না থাকে। এবার ফালি করে রাখা কয়েকটা কাঁচামরিচ এতে দিয়ে দিবেন।

মসলা কিছুক্ষন কষানোর পর এর মধ্যে কিছুটা পানি দিয়ে দিবেন। পানি না দেয়া হলে গুঁড়া মসলা পুড়ে যাবে। এবার এতে দিয়ে দিবেন ১ টেবিল চামচ পরিমাণ মরিচের গুঁড়া, ১টেবিল চামচ পরিমাণ হলুদের গুঁড়া, ১টেবিল চামচ গরম মসলার গুঁড়া এবং ১ টেবিল চামচ ধনিয়ার গুঁড়া। মসলা কষিয়ে নিতে হবে। এবং যখন তেল উপরে উঠে আসবে তখন এর মধ্যে ডাল গুলো দিয়ে দিবেন। ডাল ৫-১০ মিনিট জাল করবেন। এবং তারপর এতে কাঁচা কাঠাল টুকরো করে দিয়ে দিবেন। যে সবজি গুলো সেদ্ধ হতে সময় বেশি লাগে তা আগে দিয়ে দিবেন। এবার কাঁচা কাঠাল কিছুক্ষন জাল করবেন এবং এবার এতে ১ কাপ পরিমাণ গরম পানি দিয়ে দিবেন। স্বাদ অনুযায়ী লবণ দিয়ে দিন। তারপর ৫মিনিট ঢাকনা দিয়ে ঢেকে জাল দিবেন। এবার এর মধ্যে কিছু সবজি যোগ করবেন। এতে মিষ্টি কুমড়া, গাঁজর, আলু, কাঁচা পেঁপেঁ, ডাটা ইত্যাদি দিয়ে দিবেন। সব্জিগুলো খুব ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার আরও ১ কাপ পানি দিয়ে দিবেন। সবজি গুলো ঢাকনা ছাড়া কিছুক্ষন রান্না করার পর আধা সেদ্ধ হয়ে গেলে তাতে দিয়ে দিবেন বেগুন, পটল, টমেটো, বরবটি ও সিম। ভালোমতো নেড়েচেড়ে মিশিয়ে দিবেন। এবার ঢেঁড়স দিয়ে দিবেন। সবজি গুলো প্রায় সেদ্ধ হয়ে গেলে তাতে আস্ত ১০-১২ টি কাঁচা মরিচ দিয়ে দিবেন। এর মধ্যে পুঁই শাক দিয়ে দিবেন।যেকোনো শাক দেয়া যাবে। শাক সবার শেষে দিবেন কারণ সেদ্ধ হতে বেশি সময় লাগে না।

এবার এতে দিয়ে দিবেন ১ চা চামচ জিরার গুঁড়া, ১ চা চামচ ধনিয়ার গুঁড়া এবং ১ চা চামচ গরম মসলার গুঁড়া। এবার ভালো মত নেড়েচেড়ে মিশিয়ে নিবেন। এবার অন্য প্যানে ২ টেবিল চামচ তেল নিয়ে নিবেন। এই তেলে ১ কাপ পরিমাণ পিয়াজ কুচি দিয়ে দিবেন। বাদামি রঙ হওয়ার পরে ১ টেবিল চামচ পাঁচফোড়ন ও কয়েকটি শুকনো মরিচ দিয়ে ২-৩ মিনিট ভাজবেন। ভাজা হয়ে গেলে তা সবজির মধ্যে দিয়ে দিবেন। এবার সবকিছু ভালমত নেড়ে চুলা অফ করে দিবেন। এবার এর উপরে ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিবেন। ধনেপাতা দেয়ার পর আবার ভালোমত মিশাবেন। এবার পরিবেশন করুন গরম গরম মজাদার পুষ্টিকর নিরামিষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *